ছেলেরা হাতে মেহেদী দিতে পারবে না কেন?

Important things to know

Mehedi। Mahdi । Not allowed for male।

Why? What’s the matter?

 

ঈদের সময় এলে নারীদের পাশাপাশি অনেক পুরুষকেও হাতে মেহেদি দিতে দেখা যায়। বিয়ের সময়ও অনেক পুরুষ মেহেদি ব্যবহার করে। আমার প্রশ্ন হলো, শরিয়তে পুরুষের হাতে মেহেদি দেওয়ার বিধান কী?

 

 

পুরুষ সাজসজ্জার উদ্দেশে হাতে-পায়ে-নখে মেহেদি ব্যবহার করতে পারবে না। কারণ মেহেদি এক ধরনের রং। আর শরিয়ত অনুযায়ী পুরুষের জন্য রং ব্যবহার করা নিষিদ্ধ। হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, পুরুষের সুগন্ধি এমন হবে, যার ঘ্রাণ প্রকাশ পায় এবং রং গোপন থাকে। আর নারীর সুগন্ধি এমন হবে, যার রং প্রকাশ পায় কিন্তু ঘ্রাণ গোপন থাকে। (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ২৭৮৭)

 

হাদিসের ভাষ্য অনুযায়ী, পুরুষ সাজসজ্জার জন্য রং ব্যবহার করতে পারবে না। আরো একাধিক হাদিসে অঙ্গসজ্জার জন্য পুরুষকে রং ব্যবহার করতে নিষেধ করা হয়েছে। তবে পুরুষ চুল ও দাঁড়িতে মেহেদি ব্যবহার করতে পারবে। একইভাবে চিকিৎসার প্রয়োজনে পুরুষ মেহেদি ব্যবহার করতে পারবে—সেটা যে অঙ্গেই হোক না কেন। (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ২৩৪১; রদ্দুল মুহতার : ৬/৪২২)

 

পুরুষদের জন্য বিয়ের সময় হাতে-পায়ে মেহেদী ব্যবহার করা জায়েয নেই। বরং সাজ-সজ্জার উদ্যেশ্যে তারা কখনও হাতে-পায়ে মেহেদী লাগাতে পারবে না। কারণ এটা এক ধরনের রঙ। আর পুরুষদের জন্য রঙ ব্যবহার করা নিষিদ্ধ।

 

হাদিস শরিফে এসেছে, আবূ হুরাইরাহ রাযি. হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেন,

 

إنَّ طيبَ الرِّجالِ ما ظَهرَ ريحُهُ وخفِيَ لونُهُ وطيبَ النِّساءِ ما ظَهرَ لونُهُ وخفيَ ريحُهُ

 

পুরুষের সুগন্ধি এমন হবে যার সুগন্ধ প্রকাশ পায় কিন্তু রঙ গোপন থাকে এবং নারীর সুগন্ধি এমন হবে যার রঙ প্রকাশ পায় কিন্তু সুগন্ধ গোপন থাকে। ( তিরমিযী ২৭৮৭)

READ MORE:  যাকাত ফরজ হওয়ার আধুনিক হিসাব

 

তবে চুল ও দাঁড়িতে ব্যবহার করতে পারবে। আর চিকিৎসার প্রয়োজনে যেকোনো স্থানে মেহেদী ব্যবহার করা জায়েজ আছে। (রদ্দুল মুহতার ৬/৪২২)

 

ইসলামী শরিয়াহ বিশেষজ্ঞদের মতে, পুরুষের জন্য মেহেদি ব্যবহার সম্পূর্ণ হারাম। ছেলে বাচ্চাদের জন্যও এটি নিষিদ্ধ। আবু হুরাইরাহ (রা.) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, পুরুষের সুগন্ধি এমন হবে যার সুগন্ধ প্রকাশ পায় কিন্তু রং গোপন থাকে এবং নারীর সুগন্ধি এমন হবে যার রং প্রকাশ পায় কিন্তু সুগন্ধ গোপন থাকে।

 

তিরমিজি, হাদিস ২৭৮৭

 

হাতে বা পায়ে সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য পুরুষদের মেহেদি ব্যবহার করার অনুমতি নেই। তবে কোনো কোনো শরিয়াহ বিশেষজ্ঞের মতে, চিকিৎসার পথ্য হিসেবে পুরুষের জন্য মেহেদি ব্যবহারের অনুমতি আছে। পুরুষরা চাইলে মাথায় খেজাব ব্যবহার করতে পারবে। শরিয়াহ এটি সমর্থন করে। রাসুলে আকরাম (সা.) বলেন, ইহুদি খ্রিস্টানরা যেহেতু খেজাব ব্যবহার করে না তাই তোমরা খেজাব ব্যবহার করে। বুখারি, ২:৮৭৫, বাবুল খেজাব। আবু দাউদ, ২: ৫৭৮, বাবুন ফিল খেজাব