কে এই মিয়া খলিফা এবং কিভাবে পর্ণ দুনিয়ায় প্রবেশ করলেন?। Biography of Mia Khalifa

মিয়া খলিফার ইতিহাস-  মিয়া খলিফা ২০১৪ সালে পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। ২০১৪ সালের শুরুর দিকে তিনি তার স্বামীর সাথে প্রথম পর্নো জগতে প্রবেশ করেন। তাঁরা দুজনে একটি NSFW সাব-রেডিটে বেশ কয়েকটি পর্নোগ্রাফিক ছবি পোস্ট করেন। তারপর শুরু হয় পর্ন ভিডিও বানানো।

 

সেই বছরের অক্টোবরে একটি ভিডিও পুরো মুসলিম বিশ্বকে হতবাক করেছিল। ভিডিওটিতে খলিফাকে হিজাব পরা অবস্থায় একটি থ্রিসোম সেক্সে দেখা যায়। এজন্য আইএসআইএস থেকে তাকে মৃত্যুর হুমকিও দেওয়া হয়েছিল। এই ঘটনার পরপরই তার বাবা-মা তাকে ত্যাজ্য ঘোষণা করেছিল।

মিয়া খলিফার পরিচয় (Introduction to Mia Khalifa)

মিয়া খলিফা লেবাননের বৈরুতে জন্মগ্রহণ করেন এবং দশ বছর বয়সে সেখানে যাওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রে বেড়ে ওঠেন। তিনি বৈরুতের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তেন। তিনি মিয়া ক্যালিস্তা (Mia Callista) ছদ্মনামে একজন প্রাপ্তবয়স্ক চলচ্চিত্র বা পর্ণ অভিনেত্রী হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য স্নাতক শেষ হওয়ার আগেই বিশ্ববিদ্যালয় ত্যাগ করেন।

বস্তুত তাঁর আবেদন এড়িয়ে যাওয়ার সাধ্য তো কারোরই নেই। নীল ছবির দুনিয়া ছেড়েছেন বেশ কয়েক বছর হল। তবুও অনুরাগীর সংখ্যায় ভাঁটা পড়েনি। ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে মন্তব্যই হোক বা পছন্দের খাওয়ার ভিডিও। যাই করুন না কেন, তাতেই ভাইরাল প্রাক্তন পর্ন স্টার মিয়া খলিফা।

 

মিয়া খলিফার জীবনী (Biography of Mia Khalifa)

মিয়া খলিফা ১৯৯৩ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তার জন্মস্থান বৈরুত। লেবানন এবং দক্ষিণ লেবানন সংঘাতের কারণে তার পুরো পরিবার যুক্তরাষ্ট্রে চলে যায়। তারপর মূলত সেখানেই তাঁর বেড়ে ওঠা। কিশোর বয়সে, তিনি মেরিল্যান্ডের মন্টগোমেরি কাউন্টিতে থাকতেন।

তিনি পূর্বে ২০১৪ এবং ২০১৫ সালের মধ্যে চলচ্চিত্র অভিনেত্রী হিসাবে কাজ করেছিলেন। মূলত তিনি একজন পর্ণস্টার। নীল ছবির দুনিয়া এখন অতীত। তবু মিয়ার শরীরী আবেদনে ফের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল এবং আবারো উত্তাপ কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিলেন মিয়া। পোশাকহীন শরীরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের ধরা দিলেন প্রাক্তন পর্নস্টার।

READ MORE:  আবু ত্বহা মুহাম্মাদ আদনান জীবনী | Biography of Abu Taha Muhammad Adnan

মিয়া খলিফার শিক্ষা জীবন (Mia Khalifa’s educational life )

মিয়া খলিফা টেক্সাস-এল পাসো (University of Texas-El Paso) বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চতর পড়াশোনা করেছেন। তিনি ইতিহাস বিভাগ থেকে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি বারটেন্ডার হিসাবে কাজ করেছিলেন এবং ডিল বা নো ডিল -এ ব্রিফকেস মেয়েও ছিলেন। তার স্কুল জীবনে, তিনি ল্যাক্রোস খেলতেন।

 

মিয়া খলিফা কাকে বিয়ে করেছিলেন? (Who did Mia Khalifa marry?)

মিয়া খলিফা ২০১১ সালে তার হাইস্কুলের বয়ফ্রেন্ডকে বিয়ে করেছিলেন কিন্তু ২০১৬ সালে তাকে তালাক দিয়েছিলেন।

২০১৯ সালে মিয়া সুইডিশ শেফ রবার্ট স্যান্ডবার্গের (Robert Sandberg) সাথে বাগদান সম্পন্ন করেন। তারপর ধুমধাম করে বিয়ের অনুষ্ঠান করার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে তারা পরিকল্পনাটি পরিবর্তন করেন। রিপাবলিক ওয়ার্ল্ড অনুসারে, মিয়া একই মাসে স্যান্ডবার্গকে বিয়ে করেছিলেন।

মিয়া খলিফার মোট সম্পদ (Total assets of Mia Khalifa)

মেগান অ্যাবটের (Megan Abbott) সাথে একটি সাক্ষাৎকারের সময়, মিয়া খলিফা তার উপার্জন সম্পর্কে তথ্য শেয়ার করেছিলেন। মিয়া তখন দাবি করেন যে তিনি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী হিসাবে মাত্র ১২ হাজার ডলার পেয়েছিলেন।

২০২১ সালে মিয়া খলিফার মোট সম্পদ ৪ মিলিয়ন ডলার বলে তিনি দাবি করেন। মিয়া এবং তার সুইডিশ বাগদত্তা এখন একটি ইউটিউব চ্যানেল চালাচ্ছেন। ইউটিউব চ্যানেলে নিয়মিত তিনি তাঁর দৈনন্দিন জীবন সম্পর্কে ভিডিও আপলোড দেন।

মিয়া খলিফার ইতিহাস

মিয়া খলিফার ইতিহাস জানা যায় তাঁর দেওয়া বিবিসির একটি সাক্ষাৎকারে। প্রাক্তন প্রাপ্তবয়স্ক চলচ্চিত্র অভিনেত্রী মিয়া খলিফা বিবিসিকে দেওয়া সেই সাক্ষাৎকারে পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে আসার পিছনের কারণ ব্যাখ্যা করেছেন।

২৬ বছর বয়সী মিয়া ২০১৫ সালে মাত্র তিন মাস পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেছিলেন। কিন্তু এখনও কিছু অ্যাডাল্ট ফিল্ম সাইটে তিনি শীর্ষস্থানে রয়েছেন।

তিনি বিবিসির সাথে প্রাপ্তবয়স্ক চলচ্চিত্র শিল্পে কাজ করার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। এসময় মিয়া বলেছেন, তাঁর সাম্প্রতিক সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হওয়ার পরে কাজের অন্য ঐ রকম গল্প সহ আরও কয়েকজন প্রযোজক তার কাছে কাজের জন্য যান। তাদের সাথে তিনি পর্ন শিল্পের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেছেন। কিন্তু পর্ণ ইন্ডাস্ট্রিতে আর যাবেন না বলে তাদেরকে স্রেফ জানিয়ে দিয়েছেন।

READ MORE:  অন্যরকম.মাহমুদুল হাসান সোহাগ

তাঁর বর্ণনাকৃত ইন্টারভিউ থেকে পর্ণ দুনিয়ার নানা কালো অধ্যায় সম্পর্কে ধারণা সবার সামনে আসে।

 

মিয়া খলিফার রহস্যময় চশমা (Mia Khalifa’s mysterious spectacles)

মিয়া খলিফার চশমা নিয়ে অনেকের অনেক আগ্রহ লক্ষ্য করা যায়। অনেকের মনের কৌতুহলেরও শেষ নেই। আপনি কি জানেন? পর্ন ভিডিওতে যে চশমা মিয়া ব্যাবহার করতেন সেটা তিনি তাঁর নিজ দেশের প্রয়োজনে নিলামে তুলেছিলেন।

 

মিয়া খলিফা পেশাদার পর্নস্টার ছিলেন তখন তাকে খুনের হুমকি দিয়েছিল নিজের দেশ লেবাননের কট্টরপন্থীরা। দেশটিতে প্রবেশাধিকারও হারান তিনি। কিন্তু মাতৃভূমির সংকটে তিনিই এগিয়ে এসেছিলেন সাহায্যের হাত বাড়িয়ে।

সম্প্রতি ভয়াবহ বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত লেবানন। দেশের পাশে দাঁড়াতে অর্থসংগ্রহের মিশনে নেমেছিলেন তিনি। সেজন্য তিনি নিজের বিখ্যাত চশমাটি নিলামে তুলেছেন। এ থেকে সংগৃহীত অর্থ তিনি ত্রাণে তুলে দিয়েছেন। দেশপ্রেমের এক অনন্ত নজীর স্থাপন করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় খলিফা জানান, লেবাননের পাশে দাঁড়াতে তার বিখ্যাত চশমা নিলামে তুলছেন তিনি। সেটি বিক্রি করে যে অর্থ তিনি পেয়েছেন, তা বিস্ফোরণ বিধ্বস্ত দেশের রেড ক্রসের ত্রাণ তহবিলে দান করেছেন।

চশমার বিষয়ে গ্লোবাল নিউজ জানায়, মিয়া খলিফা চশমাটি ই-বেয়তে (e-bay) নিলামে তুলেছেন। সেটির মূল্য এখন পর্যন্ত এক লাখ ডলার উঠেছে। নিলাম চালু থাকবে আজ শনিবার বিকাল পর্যন্ত। এই নিলাম থেকে যা অর্থ উঠবে তা পুরোটাই লেবাননের রেড ক্রস এর হাতে তুলে দেবেন মিয়া।

 

মিয়া খলিফার মৃত্যুর ভাইরাল খবর (Viral news of Mia Khalifa’s death)

কয়েক মাস আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি গুঞ্জন ওঠে মিয়া খলিফা মৃত্যুবরণ করেছেন।

ভক্তদের সঙ্গে মাইক্রো ব্লগিং সাইটে চ্যাট করার সময়ই মিয়ার চোখে পড়ে সেই ট্যুইট: শকিং মিয়া খালিফা আত্মঘাতী হয়েছেন – RIP #miakhalifa!

এরপরই পাল্টা ট্যুইট করেন মিয়া। মজা করেই তিনি লেখেন, ‘দয়া করে এটা ভেবো না, যে কোন বন্ধুরা শোকবার্তা পাঠাচ্ছে না, তার কোনও ট্র্যাক রাখছি না’!

READ MORE:  কাজী নজরুল ইসলাম জীবনী | Biography of Kazi Nazrul Islam

সম্প্রতি মিয়া খলিফা ২০১৯ সালে টিকটকে এসেছেন। সেখানেই তিনি দেখিয়েছেন, নাক নিয়ে কত কেরামতি করা যায়, তার নানান ধরন। তিনি বলেন, ‘১৫ বছর ধরে এমনটা ভাবছিলাম। অবশেষে হল।’

মিয়া খলিফা এখন কোথায় আছেন?

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে এক বছরের দীর্ঘ বিরতির পর, খলিফা ২০১৬ সালে ইনস্টাগ্রামে ফিরে আসেন এবং তিনি একটি নতুন শুরুর সন্ধানে আমেরিকার টেক্সাস শহরে পুনরায় অবস্থান করেছিলেন।

২০১৭ সালের অক্টোবরে, খলিফা ঘোষণা করেছিলেন যে তিনি আউট অফ বাউন্ডস নামে একটি দৈনিক স্পোর্টস টক শো-এর সহ-হোস্টিং করবেন কিন্তু তারপর দুই মাস পরে ছেড়ে দেন।

মিয়া খলিফার খেলা

যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় পর্ন তারকা মিয়া খলিফা আইস হকি দেখতে দর্শক সারিতে বসেছিলেন। হঠাত্‍ই ছয় আউন্স ওজনের হকির একটি অংশ ‘পাক’ (আইস হকিতে ব্যবহৃত ডিস্ক) এসে তাঁর বুকে আঘাত করে। 

সংবাদমাধ্যম মিড ডে এ খবর অনুযায়ী দুর্ঘটনার বর্ণনা দিয়ে মিয়া খলিফা জানান, খেলা চলাকালে তিনি কাঁচের দেওয়ালের পেছনে বসেছিলেন। মিয়া খলিপা ভাবতেই পারেননি যে হুট করে ডিস্কটি এসে তাঁর বুকে আঘাত করবে! তিনি ডিস্কটি বুকে চেপে ধরেছিলেন। নইলে রক্ত ছড়িয়ে যেত!