VPN ব্যবহার করা কি নিরাপদ?

VPN ব্যবহার করা কি নিরাপদ?  

 

VPN ব্যবহার করা কি নিরাপদ?  আমরা অনেকেই ভিপিএন ব্যবহার করে থাকি নানা কাজে। আজ আমরা জানব ভিপিএন (VPN) ব্যবহারের সুবিধা, অসুবিধা ও নিরাপত্তা সম্পর্কে। 

 

VPN এর পূর্ণরূপ বা পুরো নাম হল virtual private network (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক)।

 

ব্যক্তিগত নিরাপত্তায় ইন্টার্নেট ব্রাউজিং/ যোগাযোগের ক্ষেত্রে ভিপিএন যেমন বিশেষ সুবিধা দেয়; তেমনি পদে-পদে সতর্কতার সাথে চলা উচিত।

 

এটি নির্ভর করে কোন দেশের মধ্যে ভিপিএন অ্যাকসেস করা হচ্ছে, উদাহরণ হিসাবে বলা যায় দেশটা যদি রাশিয়া বা চীন হয় তবে অবশ্যই ভিপিএন ব্যাবহার করা দণ্ডনীয় অপরাধ আর যদি দেশটা ভারত বা আমেরিকা হয় তাহলে অপরাধ নয়। তবে ভিপিএন ব্যাবহার করে অনৈতিক কাজ করা সব দেশের জন্যই কঠোর অপরাধ। 

 

VPN ব্যবহারের কিছু সুবিধা এবং অসুবিধা 

 

ফ্রি vpn আপনার সম্পর্কিত তথ্য বিক্রি করে দেয়। এই তথ্য বিক্রির টাকা দিয়ে তারা ব্যবসা চালু রাখে। তাই আপনার মূল পরিচয় প্রকাশ হতে পারে কিছু জায়গায়।

 

* পেইড vpn আপনার তথ্য বিক্রি করে না। তাই এই সার্ভিস নিলে আপনার গোপনীয়তা বজায় থাকার সম্ভাবনা বেশি।

 

* কিছু দেশের সরকার গোপনীয়তা নিয়ে বিশেষ আইন প্রণয়ন করে থাকে। এর আওতায় থাকলে কিছু স্পেশাল কারণে (যেমন মনে করুন – সন্ত্রাসী আক্রমণ) – সরকার পেইড vpn কেও নির্দেশ দিতে পারে, ব্যক্তির অরিজিনাল এড্রেস জানানোর। তখন প্রতিষ্ঠান তথ্য দিলে সরকার আপনাকে খুঁজতে পারবে।

 

* কখনো কখনো vpn এর রিভার্স ইঞ্জিনিয়ারিং করা হয়। এই পদ্ধতিতে আপনার আসল লোকেশন জেনে ফেলা সম্ভব হতে পারে।

 

VPN ব্যবহার করা কি নিরাপদ? 

 

আপনি যখন vpn এর কোনো একটি ব্লক ওয়েবসাইট ওপেন করছেন তখন কিন্তু সেই ওয়েবসাইট কোম্পানিগুলো আপনাদের অরিজিনাল আইপি এড্রেস দেখতে পাবে না, শুধুমাত্র ভিপিএন কোম্পানি আপনার অরজিনাল ইন্টারনেট প্রটোকল অ্যাড্রেস দেখতে পাবে। সেক্ষেত্রে নিরাপদ বলা যেতে পারে কিন্তু আপনি যদি ভিপিএন ব্যবহার করে অবৈধ কাজ করেন তাহলে কিন্তু নিরাপদ নয়। 

READ MORE:  আজকের এয়ারটেল ইন্টারনেট অফার Airtel Internet Offer