রাতে আলো জালিয়ে ঘুমালে কি কোনো ক্ষতি হয়?

রাতে আলো না জ্বালিয়ে ঘুম আসে না। এ অভ্যাস কিন্তু কাজের নয়। রাতে আলো নিভিয়ে ঘুমাতে গেলে শরীর ভাল থাকে। কেন?‌ জেনে নিন।

 

রাতের ঘুম আমাদের জন্য ওষুধ হিসাবে বিবেচনা করা হয়। কারণ আপনার ঘুম যত গভীর হবে আপনার স্বাস্থ্য তত ভালো হবে। ভালো ঘুম হলে আপনার মস্তিষ্ক ঠিকভাবে কাজ করবে, পেশী পুনরুদ্ধার হবে, রোগ নিরাময় হবে, আপনার মেজাজ ভাল থাকবে। এ ছাড়া বিশেষজ্ঞরা বলেন, সপ্তাহে যারা ২০ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে অনলাইনে থাকেন, বিশেষ করে ১৬ থেকে ২৪ বছর বয়সের মধ্যে, তাঁদেরও এ সমস্যা হতে পারে।

 

রাতের বেলায় আপনি যখন রাতে রুম লাইট জ্বালিয়ে ঘুমান, তখন এই আলো আপনার ঘুমে ব্যাঘাত ঘটাবে। আমাদের মস্তিষ্কে বিভিন্ন ধরণের হরমোন (মেলাটোনিন) উত্পাদন শুরু করে, যা আমাদের ঘুমাতে সাহায্য করে। আর সেটি না হলে আমরা পেঁচার মতো জেগে উঠি। যদি আপনিও কোনও কারণে আলো জ্বালিয়ে ঘুমান, তবে এর ফলে ঘটে যাওয়া কিছু অসুবিধাগুলি সম্পর্কে এখানে জেনে নিন …

 

হালকা আলোয় পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

 

ঘুমের সময় আলো আপনার মস্তিষ্কের ব্যাঘাত ঘটবে। এর ফলে গভীর ঘুমোতে পারবেন না আপনি । রাতে আপনি যত বেশি হালকা ঘুমবেন তত শরীরে সমস্যা হবে। শরীরেও আপনার নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে শুরু করবে।

 

বিষণ্ণতা গ্রাস করবে

 

ঘুম করে হলে হতাশা বেড়ে যায়। বৈদ্যুতিন ডিভাইসগুলি থেকে আসা নীল আলো আপনার মেজাজের উপর সবচেয়ে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। ঘুমের অভাবের কারণে সবসময় মেজাজ খারাপ হয়ে ওঠে। যে কোনও সাধারণ ব্যাপারে বিরক্তি বাড়বে। এমনকি শিশুরা ঘুম কম হলে খিটখিটে হয়ে যায়।

 

স্থূলত্ব সমস্যা

 

একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, টিভি দেখতে দেখতে ঘুমানোর ফলে মহিলাদের স্থূলত্বের ঝুঁকি বেশি হয়ে গিয়েছে। গবেষণায় অংশ নেওয়া মহিলাদের ওজন গত এক বছরে প্রায় ১১ পাউন্ড বেড়ে গিয়েছে।

 

দুর্ঘটনার আশঙ্কা

 

পর্যাপ্ত মানের ঘুম না হলে পরের দিন কর্মক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয়। এই কারণে দুর্ঘটনার ঝুঁকি থাকে। প্রাপ্তবয়স্কদেরও পড়ে যাওয়ার ঝুঁকি বেশি হতে পারে।

 

দীর্ঘস্থায়ী রোগের ঝুঁকি বাড়ায়

 

যদি আলো জ্বালিয়ে রাখলে তবে আপনার শরীরে কিছু দীর্ঘস্থায়ী রোগের ঝুঁকি বাড়তে পারে। যেমন- স্থূলত্ব, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ বা টাইপ ২ ডায়াবেটিস।

 

লাইট জ্বালিয়ে ঘুমানোর সুবিধা আছে কি?

 

আলো জ্বালিয়ে ঘুমানোর সময় ঘুম কিছুটা হলেও কম হতে পারে। তবে বাচ্চারা বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘুমানোর আগে ঘরের লাইট বন্ধ করতে ভুলবেন না, যাতে তারা আরও ভালো ঘুমাবে।

 

আলো ছাড়া ঘুম না হলে কী করবেন?

 

রাতে অ্যালকোহল, ক্যাফিন এবং ভারী খাবার এড়িয়ে চলুন। দিনের শুরুতে শরীরচর্চা করুন বা বিকেলেও করতে পারেন। ঘরে গাঢ় রঙের পর্দা ব্যবহার করুন। শোবার আগে আপনার লাইট বন্ধ করতে শুতে যান। প্রতিদিন রাতে একই সময়ে বিছানায় যান এবং একই সময়ে উঠুন।