নানার বাড়ি

স্কুল যখন দিবে ছুটি
চড়ব এবার গাড়ি
বই খাতা সব ঘুচিয়ে রেখে
যাব নানার বাড়ি।
পড়া লেখা নাইকো সেথায়
ঘুরব ফিরব মন যেথা চায়
সব মামা আর সব খালাদের হবে আগমন
চলবে সেথায় অনেক দিনের হরেক আয়োজন।
সকালবেলা খেজুর রসের
পিঠা ভারি মজা
বড়শি নিয়ে চলে যাব
পুকুর ঘাটে সোজা।
বড়শির আগায় খাবার গেঁথে
ফেলব যখন টোপ
কত রকম মাছ যে পাব
ভাবতে হয় যে লোভ।
দুপুর বেলা সাঁতার জানা
বন্ধুরা সব মিলে
কাটব সাঁতার মাঝ পুকুরে
কলার ভেলা নিয়ে।
আসর শেষে ঘুড়ি নিয়ে
আসব বাগান বাড়ি
ঘুড়ির সাথে উড়ব আমি
আকাশ বাতাস ছাড়ি।
সন্ধ্যা হলে আঁধার কেটে
চাঁদ উঠবে যবে
মাঝ উঠানে পাটি পেতে
গল্পের আসর হবে।
এমনি কত মজার সময়
কাটবে নানার বাড়ি
আয় ছেলেরা আয় মেয়েরা
নানার বাড়ি যাবি।
লেখক,
জোনাইদ হোসেন
চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়