গাঁজার নেশা থেকে যেভাবে মুক্তি পেতে পারেন

আমাদের কাছে অনেক মাদকদ্রব্য থাকলেও সব থেকে সস্তা যাতে কম নেশা হয় এবং যা কম ক্ষতি করে তা হলক্যানাবিস। ক্যানাবিস হল এমন এক ধরনের উদ্ভিদ,যার পাতার গুঁড়ো করে ক্যানাবিস তৈরি হয়। উত্তর ভারতে এর ব্যবহার সর্বাধিক ।ক্যানাবিস এর ব্যবহার সাধারণত হালকা নেশা তথা ড্রাগ হিসেবে করা হয়| ক্যানাবিস ভারতের সর্বত্র পাওয়া যায়|কিছু উৎসবের সময় ক্যানাবিস-এর বহুল ব্যবহার দেখতে পাওয়া যায়| সে ভাবে বলতে গেলে ক্যানাবিস আমাদের সংস্কৃতির অঙ্গ| বিশেষ উৎসবের সময় ছোট থেকে বড় সমস্ত বয়সের মহিলা এবং পুরুষ প্রায় সবাই ক্যানাবিস গ্রহণ করে| কিছু লোক গুজিয়া, ঠান্ডা জলের সাথে ক্যানাবিস গ্রহণ করে| কিন্তু সমস্যা তখন হয় যখন নেশা মাত্রারিক্ত হয়ে যায়, চিন্তাশক্তি কাজ করে না|কিন্তু কেউ যদি ক্যানাবিসে বেশি আসক্ত হয়ে পরে ,তবে তখন তাকে হাসপাতালে ভর্তির সম্ভাবনা দেখা যায় |গাঁজা খাওয়ার ফলে শরীরের স্নায়ুতন্ত্রের নিয়ন্ত্রণ সমস্যাদেখা যায় ৷ তাই মানুষ তার কোনও কার্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। কাঁদা ,ঘুমোনো ইত্যাদি অনেক উপসর্গ গাঁজারনেশায়দেখা যায় ৷গাঁজা খাওয়ার ফলে, ব্যক্তিটি কিছু সময়ের জন্য কোনো ব্যক্তিটিকে চিনতে বা কিছু মনে রাখতে পারে না।

তাই আজ আমরা ক্যানাবিস এর থেকে মুক্তি লাভের কিছু উপায় সম্পর্কে জানব যা অবশ্যই আপনাকে সাহায্য করবে —

  • টক ফল-কমলা, আঙুর,লেবু, ইত্যাদিতে বর্তমান অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস নেশার জন্য দায়ী কেমিক্লযাকে নিষ্ক্রিয় করে। এই ফল খাওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে সমস্ত নেশা চলে যায় ।শরীর সমস্ত শক্তি হারিয়ে ফেলে ৷
  • টক পদার্থটক পদার্থ সব সময় নেশা কমাতে সাহায্য করে৷ যদি কেউ ক্যানাবিস এর মাত্রারিক্ত সেবন করে নেয় তাহলে তাকে লেবু ,ঘোল, টক দই, কাঁচা আমের শরবত বা আমলার শরবত খাওয়ান ৷এটা নেশা কমাতে এবং আপনাকে সাধারণ অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করবে৷
  • নারকেলের জলনারকেলের জল গাঁজার নেশা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। নারকেলের জলের ফলে নেশা তো কম হয় উপরন্তু এতে মজুত মিনারেল এবং ইলেক্ট্রোলাক্স শরীরে গাঁজার নেশার ফলে হওয়া শুষ্কতা কাটাতে সাহায্য করে এবং নেশা কেটে যায়।
  • লেবুচিনি বা লবণ ছাড়া লেবুর শরবত ৪-৫ বার খেলে নেশা কেটে যায়।এছাড়া শুধুমাত্র লেবু চাটলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।
  • সরিষার তেলযদি কেউ ক্যানাবিস এর কারণে অনেকক্ষণ অচেতন অবস্থায় থাকে ,তাহলে তার কানে দু ফোটা সরষের তেল দিলে তার অচেতন অবস্থা কেটে যায়।
  • চানা ও কমলাযদিও আমরা সবাই ছোলার বিবিধ গুণ সম্পর্কে অবগত তাও সম্ভবত আপনি এটা জানবেন না যে ছোলা গাঁজার নেশা কাটাতে সাহায্য করে।যদি কেউ ক্যানাবিস এর অতিরিক্ত সেবন করে থাকেন তাহলে তাকে ভাজা ছোলা এবং কমলালেবু খেতে দিন,এতে তার নেশা কেটে যাবে।
  • দেশী ঘিখাঁটি দেশী ঘি গাঁজার নেশা কাটানোর জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।ঘি ব্যবহারের মাত্রা ৫০০ মি: লি:হলে এর প্রভাব লক্ষ্য করা যায়।
  • আদাএক টুকরো আদা খাওয়ানোর ফলে ও নেশা কেটে যেতে পারে।
READ MORE:  বন্ধ্যাত্ব এর কারণ এবং চিকিৎসা

যদিও এগুলোর পরে নেশা কেটে যাওয়া উচিত কিন্তু যদি তা না হয় তাহলে ডাক্তার দেখানো মুহূর্তমাত্র বিলম্ব করা উচিত নয়।