গরু মোটাতাজাকরণ এর সঠিক পদ্ধতি

গরু মোটাতাজাকরণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রক্রিয়া। গরু মোটাতাজাকরণ দানাদার খাদ্য তালিকা অনুযায়ী গরুকে খাবার প্রদান করে সহজেই গরু মোটাতাজাকরণ করা যায়। গরু মোটাতাজাকরণ করলে আপনি অনেক লাভ করতে পারবেন। গরু মোটাতাজাকরণ এর সঠিক পদ্ধতি সম্পর্কে আজ আলোচনা করব৷ গরু মোটাতাজাকরণ খুবই সহজেই করতে পারবেন কিছু নিয়ম মেনে। 

 

দৈনিক খাবার

 

একটি ১০০ কেজি ওজনের গরুকে দৈনিক নিম্নোক্ত খাদ্য দেওয়া যেতে পারে তা নিম্নে দেয়া হলো- গরু মোটাতাজাকরণ এর জন্য যা খাবার দিবেন- 

 

১. ইউএমএস যে পরিমাণ খেতে পারে অথবা পর্যাপ্ত। তবে সার ও চিটা গুড়ের পরিমাণ ঠিক রেখে। ৫ গ্রাম থেকে শুরু করে ধীরে ধীরে ২৫ গ্রাম পর্যন্ত।

 

২. দানাদার ২ কেজি। তবে ভালো মানের রেডি ফিড হতে হবে। কেননা এতে প্রয়োজনীয় সব উপাদান সঠিক পরিমাণে থাকে।

 

৩. কাচা ঘাস ১০ কেজি মিনিমাম। গরু পালনের আগে ঘাস চাষ করতে হবে। যাদের ঘাস চাষ করার কোনো উপায় নেই তাদের গরু পালনের কোনো দরকার নেই।

 

গরু মোটাতাজাকরণের জন্য এছাড়াও যা করতে হবে- 

 

গরুকে পর্যাপ্ত কাঁচা ঘাস।

 

⇒ পরিমিত প্রক্রিয়াজাত খড়।

 

⇒ দানাদার খাদ্য (কুড়া, গমের ভূষি, চাউলের খুদ, খৈল, কলাই, মটর, খেশারী, কুড়া ইত্যাদি)।

 

⇒ পর্যাপ্ত পরিমানে পরিস্কার পানি  (নলকুপের টাটকা পানি) সরবরাহ এবং স্বাস্থ্যসম্মত আবাসন ব্যবস্থা।

 

⇒ নিয়মিত কৃমিনাশক

 

বেশি হলে

 

গরুর ওজন ১০০ কেজির বেশি হলে প্রতি ৫০ কেজি ওজনের জন্য দানাদার ১ কেজি এবং ঘাস ৫ কেজি যোগ করে হিসাব করতে হবে। যেমন- ১৫০ কেজি ওজনের গরুকে দানাদার ৩ কেজি এবং ঘাস ১৫ কেজি দিতে হবে।

 

পরিচর্যা

 

প্রাণিকে যে সকল রোগ প্রতিরোধে টিকা প্রয়োগ করা যেতে পারে- তড়কা, ক্ষুরা, বাদলা (প্রয়োজন  বোধে), গলাফুলা (প্রয়োজন বোধে)। ইত্যাদি।

READ MORE:  ইউরিন ইনফেকশন থেকে কীভাবে বাঁচবেন?

 

গরু মোটাতাজা করার জন্য শুধু খাবার দিলেই হবে না। পাশাপাশি পশুকে ভালোবাসতে হবে। সঠিকভাবে পরিচর্যা করতে হবে। যেমন- সময়মতো গোসল, খাবার, ওষুধ দিতে হবে। এছাড়া ভালো ব্যবস্থাপনা, যথাসময়ে সঠিক কাজ সফলতা এনে দেবে।