কে এই হামজা চৌধুরী?

হামজা চৌধুরী

বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ইংলিশ ফুটবলার

 

হামজা দেওয়ান চৌধুরী ( Hamza Choudhury) হলেন একজন ব্রিটিশ-বাংলাদেশী পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড় ( Football player) । তিনি বর্তমানে ইংল্যান্ডের পেশাদার ফুটবল লিগের দ্বিতীয় স্তর ইএফএল ( EFL) চ্যাম্পিয়নশিপের ক্লাব ওয়াটফোর্ডের (Watford F.C.) হয়ে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন। তিনি মূলত একজন রক্ষণাত্মক মধ্যমাঠের ( Defencive mid) খেলোয়াড় হিসেবে খেললেও মাঝেমধ্যে কেন্দ্রীয় মধ্যমাঠের ( Central midfielder) খেলোয়াড় হিসেবে খেলে থাকেন।

 

ব্যক্তিগত তথ্য

 

পূর্ণ নাম: হামজা দেওয়ান চৌধুরী

জন্ম: ১ অক্টোবর ১৯৯৭ (বয়স ২৫)

জন্ম স্থান: লাফবারা, ইংল্যান্ড

উচ্চতা: ৫ ফুট ১০ ইঞ্চি (১.৭৮ মি)

বর্তমান দল: ওয়াটফোর্ড

(লেস্টার সিটি হতে ধারে)

 

জন্মের পটভূমি

 

মিশ্র ক্যারাবিয়ান এবং বাংলাদেশী বংশধর। তার মায়ের জন্মস্থান  বাংলাদেশের সিলেট বিভাগে, তার দেশের বাড়ি হচ্ছে হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলার স্নানঘাট উনিয়নের দেওয়ান বাড়ি।

 

খেলোয়াড়ী জীবন

 

চৌধুরী খেলোয়াড় হিসেবে তার কর্মজীবন শুরু করেন ব্রিটিশ ক্লাব লেস্টার সিটির ( Leicester City F.C.) একাডেমিতে খেলার মধ্য দিয়ে, এবং মাত্র ১৬ বছর বয়স থেকেই, কয়েকটি শীর্ষস্থানীয় ইউরোপিয়ান ক্লাব তার উপর নজরে রাখছিল। ২০১৬ সালের ২৭শে ফেব্রুয়ারিতে, তিনি লিগ ওয়ান মোড়ল বার্টন আলবিয়ন ক্লাবে ১ মাসের জন্য ধারে খেলার চুক্তিতে যোগ দেন। এবং পরে, ওই একই দিনই তিনি ব্রিটিশ ফুটবল লিগ, দ্য ফুটবল লিগ এ মাঠে নেমে নিজের আত্বপ্রকাশ করেন, খেলার ৭৭তম-মিনিটে এসে ব্রিটিশ ফুটবলার টম নেয়লর এর বদলি খেলোয়াড় হিসেবে তিনি মাঠে নামেন, ইংল্যান্ডের বার্টনে (Barton) অবস্থিত ফিরেল্লি স্টেডিয়াম এ তার দলের বিপক্ষে ওয়ালশাল দলটির ০-০ গোলে বা ড্র দিয়ে খেলা শেষ হয়। ২০১৬ সালের ৬ই আগস্ট মাসে, চৌধুরী ব্রিটিশ ক্লাব বার্টন আলবিয়ন এর সাথে ২০১৬-১৭ মৌসুমের জন্য আরেকটি ধারে খেলার চুক্তিতে আবদ্ধ হন। একই দিনেই, চৌধুরী বার্টনের হয়ে প্রথম কোন ফুটবল লিগ চ্যাম্পিয়ন খেলায় মাঠে নামেন, যেখানে তিনি পশ্চিম ব্রিডজফোর্ডের ক্লাব নটিংহাম ফরেষ্ট এর বিপক্ষে একটি গোলে এসিস্ট করেন এবং শেষে তার দল ৪-৩ ব্যাবধানে পরাজয় দিয়ে খেলা শেষ করে। ২০১৭ সালের ১৯ই মার্চে, ইএফএল কাপের ৩য় রাউন্ডে ব্রিটিশ ক্লাব লেস্টার সিটির হয়ে জনপ্রিয় ক্লাব লিভারপুল এর বিপক্ষে চৌধুরীর অভিষেক হয়, খেলার ৮২তম মিনিটে তিনি মাঠে নামেন, এবং শেষ পযন্ত তার দল তাদের নিজেদের হোম গ্রাউন্ডে হওয়া ম্যাচটিতে জয় লাভ করে।

READ MORE:  কোন দল কতবার নিয়েছে ফুটবল বিশ্বকাপ