গলগণ্ড রোগ থেকে বাঁচতে কিছু ঘরোয়া উপায়

গলগন্ড রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা জেনে নিন। গলগণ্ড বা ঘ্যাগ রোগ আয়োডিনের অভাবে হয়ে থাকে। এর কিছু ঘরোয়া প্রতিকার নিচে আলোচনা করা হলো। গলগণ্ড রোগ থেকে বাঁচতে নিচের উপায়গুলো অনুসরণ করতে পারেন। 

 

পালং শাকঃ

থাইরয়েডের সমস্যার প্রতিকারের দশটি মুখ্য ঘরোয়া প্রতিকারের মধ্যে অন্যতম হল পালং শাক। পালং শাক প্রচুর পরিমানে ভিটামিন-এ দ্বারা সমৃদ্ধ, যা একজন মানুষের সার্বিক সুস্বাস্থ্যের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। থাইরয়েডের নিয়ন্ত্রণ এবং সমস্যার নিবারনে স্থিতি আনতেও সাহয্য করে ভিটামিন-এ। আপনার দেহে, থাইরয়েড-এন্ডোক্রাইন গ্ল্যান্ড বা গ্রন্থিও থাইরয়েড ক্ষরণের জন্য ভিটামিন-এ ব্যবহার করে। ফলতঃ বোঝাই যাচ্ছে, থাইরয়েডের সমস্যার নিরাময়ে পালং শাক একটি অন্যতম ঘরোয়া প্রতিকার।

 

কেল্পঃ

কেল্প একটি আয়োডিনসমৃদ্ধ সমুদ্র-শৈবাল, যা থাইরয়েড এর সমস্যা নিয়ন্ত্রণে ব্যবহৃত হয়। তাই স্যালাড বা সুপের সাথে মিশিয়ে, কেল্প অবশ্যই আপনার প্রাত্যহিক খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে।

 

নারকেল তেলঃ

থাইরয়েড হরমোনের ক্ষরণ যখন বেরে যায় তখন সাথেসাথে ইস্ট্রোজেনের উৎপাদনও বৃদ্ধি পায়, যা থাইরয়েড গ্রন্থির ক্রিয়াকে বাধা দেয়। নারকেল তেল এই অতিরিক্ত মাত্রায় এস্ট্রোজেনের উৎপাদন কে কমিয়ে আনে এবং দেহের বিপাক ক্রিয়ার হার বারিয়ে তোলে। ফলে আপনার সঞ্চিত মেদ শক্তিতে রুপান্তরিত হয়ে যায়। থাইরয়েডের সমস্যার নিরাময়ে, ১ কাপ দুধের সাথে ১ টেবিল চামচ নারকেল তেল মিশিয়ে রোজ সেবন করা আরেকটি অন্যতম ঘরোয়া প্রতিকার।

 

হলুদঃ

বেশিরভাগ ভারতীয় খাবারে, হলুদ একটি অন্যতম প্রচলিত মশলা। হলুদে “কারকিউমিন” রয়েছে, যা থাইরয়েড গ্রন্থির প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে। তাই থাইরয়েডের সমস্যার নিরাময়ে, হলুদ খুবই কার্যকরী।

 

সাধারণ লবনঃ

সাধারণ লবন আয়োডিন সমৃদ্ধ হয়ে থাকে, যা থাইরয়েড ক্ষরণকে নিয়ন্ত্রণে রাখে। তাই, আপনার রান্নাঘরের থেকেই প্রতিদিনের ব্যবহারের কিছু মশলা, থাইরয়েডের সমস্যার নিরাময়ে ও নিয়ন্ত্রণে খুবই কার্যকর বলে প্রমানিত।

 

আদাঃ

আদায় রয়েছে, “জিনজেরল” যা প্রদাহ নিরাময়ক হিসাবে পরিচিত। জিনজেরল, থাইরয়েড প্রদাহ উপশমেও সাহায্য করে আর তাই আদা থাইরয়েডের সমস্যার নিরাময়ের ১০ টি ঘরোয়া প্রতিকারের মধ্যে একটি।

READ MORE:  কনুই এর কালো দাগ দূর করুন ঘরোয়া পদ্ধতিতে

 

আখরোটঃ

আখরোট একটি সহজলোভ্য ড্রাইফ্রুট, প্রায় সব রান্নাঘরেই পাওয়া যায়। আখরোট ম্যাগনেশিয়াম ও আয়োডিনে সমৃদ্ধ, যা থাইরয়েড হরমোন ক্ষরণে সাহায্য করে। ফলে, আখরোটও থাইরয়েডের সমস্যার নিরাময়ের আরেকটি ঘরোয়া প্রতিকার।