কিভাবে পেঁয়াজ কাটলে চোখ থেকে কম পানি বের হয়?

ছোটবেলায় আম্মু যখন রান্না ঘরে পেঁয়াজ কাটত তখন সেখানে গেলে আমার চোখ থেকে কান্না বের হত। পেঁয়াজ কাটার সময় পেয়াজের কাছে গেলেই চোখে জ্বালা পোড়া শুরু হত আমার। তখন খুবই অবাক হতাম। কেন এমন হতো পেঁয়াজ কাটার সময়। তো বড় হয়ে বিজ্ঞান পড়ে বুঝতে পারলাম কি জন্য পেঁয়াজ কাটার সময় এমন হতো। 

 

পেঁয়াজ যখন আমরা কাটি তখন পেঁয়াজের ভেতর থেকে এক ধরনের গ্যাস বের হয়। এই গ্যাসটির নাম প্রোপানেথিওল সালফার অক্সাইড। পেঁয়াজের কোষের ভিতর রয়েছে অনেক রকম এনজাইম। এই এনজাইম গুলো পেয়াজ থেকে বের হওয়া গ্যাসের সাথে বিক্রিয়া করে তৈরি করে সিম- প্রোপানেথিয়েল- এস – অক্সাইড নামক এক ধরনের অস্থায়ী উদ্বায়ী গ্যাস। এই গ্যাসটি ঘরের বাতাসের সাথে মিশে আমাদের চোখে এসে লাগলে চোখের পানির সাথে মিশে সালফিউরিক এসিডের লঘু দ্রবণ তৈরি করে। ফলে আমাদের চোখে জ্বালা পোড়া শুরু হয়, চোখ দিয়ে পানি পড়ে। এখন প্রশ্ন হলো কিভাবে পেঁয়াজ কাটলে আমাদের চোখ থেকে পানি কম বের হবে? 

 

কয়েকটি উপায়ে পেঁয়াজ কাটলে চোখ থেকে পানি কম বের হবে। চোখে জ্বালা পোড়া কম করবে। যেমন ধারালো চাকু বা বটি দিয়ে পেঁয়াজ কাটতে হবে। কারণ পেয়াজের কোষের মধ্যেই থাকে প্রোপানেথিয়েল  সালফার অক্সাইড গ্যাস। তাই পেয়াজের কোষ যত কম ক্ষতিগ্রস্ত হবে তত কম এ গ্যাস বের হবে। 

যদি ধারালো চাকু দিয়ে কাটা হয় তবে কোষ কম ক্ষতিগ্রস্ত হবে। দ্রুত পেয়াজ কাটা হবে। তাই গ্যাস কম বের হবে। সেজন্য ধারালো চাকু ব্যবহার করে পেঁয়াজ কাটলে চোখ থেকে পানি কম বের হবে। পেঁয়াজের মাথা আগে কাটা যাবে না। কারণ পেয়াজের মাথায় অর্থাৎ বোটার অংশে সবথেকে বেশি গ্যাস থাকে। পেয়াজের মাঝ বরাবর আগে কাটতে হবে। 

 

পেঁয়াজ কাটার আগে কিছুক্ষণ প্রায় ২০ – ৩০ মিনিট খোসা ছাড়িয়ে পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এতে করে আ্যাসিড এর পরিমাণ কমে যাবে পেঁয়াজ এর। ফলে কাটার সময় চোখে পানি কম আসবে। 

 

বাতাস বেশি প্রবাহ হয় এমন ঘরে বসে পেয়াজ কাটতে হবে। ফলে পেঁয়াজ থেকে বের হওয়া গ্যাস বাতাসের সাথে ঘরের বাহির চলে যাবে। 

এছাড়াও সানগ্লাস পড়ে পেয়াজ কাটলে চোখে পানি কম আসবে।