কালোজিরার উপকারিতা কি কি? এটি আমাদের সুস্বাস্থ্যের জন্য কতটুকু উপকারী?

কালোজিরা একটি আশ্চর্য খাবার। কালোজিরার পুষ্টিগুণ এবং স্বাস্থ্যগত উপকারীতা অপরিসীম। অনেকেই আমরা কালোজিরার উপকারীতা জানি না। বিধায় আমরা নিজের অজান্তেই অপরিসীম উপকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। অথচ আমরা প্রতিদিন খাবারের সাথে সামান্য একটু কালোজিরা গ্রহণ করে অনেক রোগ ব্যাধি থেকে মুক্তি পেতে পারি। কালোজিরা যেমন একদিকে সহজলভ্য তেমনি অন্যদিকে প্রচুর পুষ্টিকর। চলুন জেনে আসি কালোজিরা কিভাবে আমাদের সুস্বাস্থ্যের জন্য অনস্বীকার্য ভূমিকা পালন করে। 

 

কালোজিরাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে এন্টি অক্সিডেন্ট। এই এন্টি অক্সিডেন্ট আমাদের দেহের কোষকে রক্ষা করে। কালোজিরাতে থাইমোকুইনোন, কারভাক্রল, টি- অ্যানেথল, ফোর- টারপিনল নামক যৌগ রয়েছে যা অ্যান্টি অক্সিডেন্টগুলোর কার্যকারীতা বাড়ায় এবং ডায়বেটিস, হৃদরোগ, উচ্চরক্তচাপ, ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। কালোজিরা আমাদের দেহ হতে এলডিএল কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমাতে সাহায্য করে যা আমাদের শরীরে হৃদরোগ, ওজন বৃদ্ধি সহ নানা রকম রোগ সৃষ্টির জন্য দায়ী। অন্যদিকে কালোজিরা আমাদের শরীরে এইচডিএল কোলেস্টেরলের পরিমাণ বৃদ্ধি করে যা আমাদের সুস্বাস্থ্যের জন্য প্রয়োজনীয়। কালোজিরাতে থাকা থাইমোকুইনোন নামক যৌগ প্রোস্টেট, কোলন, সার্ভিকাল, অগ্ন্যাশয়, ফুসফুস ও ত্বকের ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। কালোজিরা ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধেও অবদান রাখে। এক গবেষণায় দেখা গেছে স্টাফিলোকক্কাল ব্যাকটেরিয়া যা কি না ত্বকের নানা রকম রোগ সৃষ্টি করে সেই স্টাফিলোকক্কাল ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে কালোজিরা অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের তুলনায় বেশি ভালো কাজ করেছে। আমাদের পাকস্থলীর এবং অন্ত্রের ভেতর থাকা ক্ষতিকর ব্যাক্টেরিয়া ধ্বংস করে কালোজিরার মধ্যে থাকা অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদানসমূহ। কালোজিরা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। রক্তে যদি শর্করা বৃদ্ধি পায় তবে নানা রকম ক্ষতিকর উপসর্গ দেখা দেয় এবং তা ডায়বেটিস সহ নানা রকম রোগের কারণ ঘটায়। কালোজিরা খেলে হজম শক্তি বৃদ্ধি পায়। রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক থাকে। কালোজিরা স্মরণ শক্তি বৃদ্ধি করে, মাথা ব্যথা ভালো করে, সর্দি প্রতিহত করে। মা দের বুকের দুধের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। মেয়েদের ক্ষেত্রে অনিয়মিত মাসিকের সমস্যা দূর করে। কালোজিরা এলার্জির লক্ষ্মণগুলো প্রতিহত করে। আমাশয় ভালো করে। কালোজিরা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ত্বক সুন্দর রাখে এবং চুল পড়া বন্ধ করে। চুলের সুস্বাস্থ্যের জন্য কালোজিরা খাওয়া অত্যন্ত কার্যকর। পুরুষদের যৌন দুর্বলতা প্রতিরোধ করে কালোজিরা। কালোজিরাতে পুষ্টি উপাদান রয়েছে ভরপুর পরিমাণে। কি নেই এতে? আমিষ, শর্করা, চর্বি, ফসফরাস, ভিটামিন, ক্যালসিয়াম, জিংক, মিনারেলস, রিবোফ্লাভিন, থায়ামিন, নায়াসিন, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ইত্যাদি প্রায় সবধরনের পুষ্টি উপাদানই কালোজিরাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে উপস্থিত। এক কথায় কালোজিরার উপকারী দিক বলে শেষ করা যাবে না। 

 

কালোজিরা খাওয়ার নিয়ম

 

কালোজিরা খাওয়ার নির্দিষ্ট নিয়ম নেই। যেকোনো ভাবেই কালোজিরা খাওয়া যায়। কাঁচা খেতে পারেন আবার ভর্তা করেও খেতে পারেন। তবে মধুর সাথে খেলে ভালো হয়। একইসাথে মধু ও কালোজিরার উপকারও পাওয়া যাবে তাহলে।