রাতে ঘুম আসে না? তাহলে লিখাটি আপনার জন্যই

রাতে ঘুম মানবদেহের জন্য অতীব জরুরি একটি বিষয়। আধুনিক যুগে নানা কারণে আমাদের ঘুমের সমস্যা হয়। রাতে আমরা অনেকেই ঘুমোতে পারি না। এতে আমাদের শরীরের ও মানসিক স্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি হয়। চলুন জেনে নেয়া যাক, রাতে ঘুম না আসার কারণ এবং ঘুম না আসলে করণীয় কি- 

 

ঘুম না আসার কারণ

 

দুশ্চিন্তা আর উদবিগ্নতা

 

কোভিড অতিমারিতে নানারকম দুশ্চিন্তা আমাদের ঘিরে রেখেছে। অধিকাংশ মানুষেরই প্রধান আতঙ্ক তারা যেন কিছুতেই ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত না হয়। সেই সঙ্গে পরিবারের বয়স্ক ও রোগা ব্যক্তিদের নিয়েও রয়েছে আক্রান্ত হওয়ার আতঙ্ক। বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান ভ্যাকসিন নিয়ে কাজ করলেও আমরা এখনও নিশ্চিত নই কবে সেটি বাজারে আসবে বা কতটা নিরাপদ।

সেই সঙ্গে যুক্ত হয়েছে অর্থনৈতিক দুশ্চিন্তা। অনেকেই চাকরি হারাচ্ছেন, কমে এসেছে অন্যান্য কাজ ও ব্যবসার সুযোগ। পৃথিবী কবে স্বাভাবিক হবে, এই চিন্তা কমবেশি সবাইই করছেন।

 

বিষণ্ণতা

 

কারও পরিবারে বা কাছের কেউ কোভিড আক্রান্ত হলে তা বাড়িয়ে দিচ্ছে দুশ্চিন্তার মাত্রা। সঠিক নিয়মে আইসোলেশন ও স্বাস্থ্যবিধি মানা শুধু রোগীরই নয়, তার স্বজনদেরকেও রেখেছে চিন্তার মধ্যে। বিশেষ করে প্রতিদিনই যখন সারা বিশ্বে এত হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে, তা দেখে স্বস্তিতে নাই কেউই। এমন পরিস্থিতিতে বিষণ্ণতায় ভুগছেন অনেকেই।

 

কাজের চাপ

 

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ওয়ার্ক ফ্রম হোম বা স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে অফিস করায় অনেকেরই কাজের চাপ বেড়েছে। নানারকম দুশচিন্তার সঙ্গে কাজের চাপ যোগ হয়ে স্ট্রেস বাড়িয়ে দিচ্ছে বহুগুণ। সেইসঙ্গে ঘরের বাড়তি কাজের চাপ তো আছেই। কাজের চাপ জনিত স্ট্রেসেও ঘুমহীনতা দেখা দিচ্ছে অনেকের।

 

বৈদ্যুতিক যন্ত্রে অতিরিক্ত সময় ব্যয়

 

মোবাইল, কম্পিউটার, ট্যাব ইত্যাদি যন্ত্রের নীলচে আলো চোখের জন্য যেমন ক্ষতিকর, তেমনি তা ঘুমেরও সমস্যা সৃষ্টি করে। মেলাটোনিন নামক হরমোন আমাদের শরীরকে ঘুমিয়ে পড়ার ইঙ্গিত দেয়। বৈদ্যুতিক যন্ত্রের পর্দার এই নীল আলো মেলাটোনিন উৎপাদনে বাঁধা দেয় যা ঘুমের সমস্যা ডেকে আনে।

READ MORE:  কাটা স্থানে Hexisol ব্যবহার করা উচিত কি না?

 

স্ট্রেসজনিত অবসাদ

 

একটানা স্ট্রেস অবসাদ ডেকে আনে। আর অতিমারির এই স্ট্রেস নানারকম শারীরিক সমস্যা তৈরি করছে। টানা মাথাব্যাথা, ভুলে যাওয়া ও হজমে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। আর অবসাদের ফলে আরও কিছু সমস্যা তৈরি হয়েছে। কাজের শক্তি, উদ্যম ও মনযোগ খুঁজে না পাওয়া এর অন্যতম। অবসাদে ভুগলে রাতে পর্যাপ্ত ঘুমের পরেও দেখা যায় সকালে উঠে কাজের উদ্যম খুঁজে পাওয়া যায় না

 

রাতে ঘুম না আসার প্রতিকার 

 

  1. রাতে শোবার সময় এবং সকালে ওঠার সময় এক রাখার চেষ্টা করুন

 

  1. প্রতিদিন ভারী কিছু কাজ করুন

 

  1. আপনার ওষুধগুলি চেক করুন এবং দেখুন এগুলি আপনাকে অনিদ্রায় ভোগাচ্ছে কিনা

 

  1. কফি এবং অ্যালকোহল জাতীয় জিনিস গুলি কম পরিমাণে সেবন করুন

 

  1. সন্ধ্যা এবং শোয়ার আগে অতিরিক্ত

 

খাবার ত্যাগ করুন

 

  1. শরীর অনুযায়ী জল পান করুন 

 

  1. শোবার ঘরটিকে আরামদায়ক করুন

 

৪. বিছানায় যাবার দু’ঘণ্টা আগে মোবাইল সরিয়ে রাখুন

 

  1. ঘুমানোর আগে বই পড়ুন

 

  1. প্রত্যেকদিন ব্যায়াম করুন

 

  1. দশ থেকে পনেরো মিনিটের জন্য

 

মেডিটেশন করুন।