হাত ও পায়ের শিরা কেন দেখা যায়?

মানুষের শরীরের ভেতর দিয়ে জালের মতো ছড়িয়ে রয়েছে বিভিন্ন শিরা। শিরাসমূহ শরীরে রক্ত পরিবহন করতে সাহায্য করে। শিরা শরীরের ভেতরে থাকে। কিন্তু আমরা খেয়াল করে থাকব হাত ও পায়ের রগ তথা শিরা  অনেকেরই দেখা যায়। ব্যাপারটিকি কি কোনো রোগ? নাকি এটি স্বাভাবিক কোনো বিষয়? 

 

এটি আসলে কোনো রোগ নয়। অনেকেরই এমনটি হয়। হাত ও পা এর শিরা দেখা যাওয়ার পিছনে অনেকগুলো কারণ রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম পুষ্টিহীনতা। আমাদের শরীরে যদি পর্যাপ্ত পরিমাণ পুষ্টি না থাকে তবে তা আমাদের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। পুষ্টি না থাকলে শরীর শুকিয়ে যায় ফলে শরীর এর চামড়া পাতলা হয়। চামড়ার ঠিক নিচেই থাকে শিরাগুলো। তাই পুষ্টির অভাবে শরীরের চামড়া এর চর্বি এর স্তর পাতলা হয়ে গেলে আমাদের শরীরের শিরা গুলো দৃশ্যমান হয়ে ওঠে। কিন্তু শিরা দেখা গেলে চিন্তার কিছুই নেই। এতে আমাদের শরীরের রক্ত প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হবে না। কিন্তু শরীরের শিরা দেখা যাওয়া পুষ্টিহীনতার একটি লক্ষ্মণ। আমাদের শরীরে বেশি পুষ্টি ঘাটতি দেখা দিলে তা আমাদের শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। পুষ্টিহীন শরীর সহজেই রোগাক্রান্ত হয়ে পড়ে। নানা রকম জটিল রোগে আমরা তখন সহজেই আক্রান্ত হব। তাই শরীর যেন পুষ্টিহীন না হয় সেজন্য আমাদের পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। আমিষ জাতীয় খাবার আমাদের দেহে শক্তি যোগায় ও শরীর স্বাস্থ্যবান করে তোলে। তাই আমিষ জাতীয় খাবার বেশি বেশি খেতে হবে। আমিষ জাতীয় খাবার বেশি বেশি খেলে শরীর সুস্থ থাকবে এবং শরীরের চামড়া পুরু হবে। ফলে শরীরের ভেতরের শিরা বাইরে থেকে দেখা যাবে না। এছাড়া চর্বি জাতীয় খাবার শরীরের চামড়া পুরু করতে সহায়ক। তাই চর্বি জাতীয় খাবারও খাওয়া যেতে পারে। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে যে চর্বি জাতীয় খাবার বেশি পরিমাণে খাওয়া শরীরের জন্য ক্ষতিকর। শুধু চর্বি নয়, যে কোনো কিছু অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়াই শরীরের জন্য ক্ষতিকর। তাই সব পুষ্টি পদার্থ প্রয়োজন মাফিক গ্রহণ করতে হবে। তাহলে শরীর সুস্থ থাকবে আমাদের। আর শরীর স্বাস্থ্যবান হলে শিরা মোটেই দেখা যাবে না। তবে একটি বিষয় খেয়াল করে থাকব, অনেক স্বাস্থ্যবান মানুষেরও শিরা দেখা যায়। সেটি আসলে জন্মগত। তাদের শরীরের চামড়া জন্মগত ভাবেই পাতলা। তাই তাদের শরীরের শিরা দেখা যায়। সর্বোপরি শরীরের শিরা দেখা যাওয়া কোনো রোগ নয়। এটি কেবল পুষ্টিহীনতা একটি লক্ষ্মণ।