প্লাস্টিকের বোতলজাত পানি কি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর?

 

প্লাস্টিকের বোতলে পানি আমরা সবাই তো কম বেশি  পান করেছি। কোথাও ঘুরতে গেলেও আমরা প্লাস্টিকের পানির বোতলে করে পানি নিয়ে যাই। দোকান থেকে বিভিন্ন কোম্পানির যে মিনারেল ওয়াটার আমরা কিনি  তাও এই প্লাস্টিকের বোতলেই থাকে। রাজধানী ঢাকা সহ বিভিন্ন বিভাগীয় শহরে প্লাস্টিকের জারে পানি বিক্রি করা হয়। কিন্তু এই প্লাস্টিকের বোতলে রাখা পানি পান করা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য কি ভালো না মন্দ তা কি আমরা ভেবে দেখেছি? 

 

প্লাস্টিকের বোতলে পানি পান করা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। যদি দীর্ঘদিন যাবৎ আমরা প্লাস্টিকের বোতলে পানি রেখে দেই তবে প্লাস্টিক পানির সাথে বিক্রিয়া শুরু করে দেয়। বিশেষ করে যে প্লাস্টিকের বোতলে পানি রাখা হচ্ছে সেই প্লাস্টিকের বোতল যদি নিম্নমানের প্লাস্টিক দিয়ে  তৈরি হয়ে থাকে তবে তা অতিদ্রুত পানির সাথে বিক্রিয়া করে বোতলের ভেতরের পানিকে দূষিত করে ফেলে। এই প্লাস্টিক দ্রবীভূত হওয়া দূষিত পানি যদি আমরা পান করি তবে কিন্তু আমরা অচিরেই নানা রকম জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে যাব। প্লাস্টিক দ্রবীভূত এই দূষিত পানি পান করার ফলে আমাদের দেহে ক্যান্সার হতে পারে। শুধু ক্যান্সার নয়, ওজন হীনতা, রক্ত শূন্যতা, কিডনী বিকল ইত্যাদি নানা রকম জটিল রোগ হতে পারে। যার পরিণামে হতে পারে অকাল মৃত্যু। সাধারণত প্লাস্টিকের বোতলে পানি রেখে তা যদি সূর্যালোকের উপস্থিতিতে রাখা হয় তবে পানি এবং প্লাস্টিকের বোতলের মধ্যে বিক্রিয়া আরও দ্রুত হয় এবং পানি দূষিত হয়ে যায়। 

 

এ ছাড়াও প্লাস্টিকের বোতল ব্যাকটেরিয়া ভাইরাস প্রতিরোধ করতে পারে না। দীর্ঘ সময় প্লাস্টিকের বোতল বা জারে পানি রাখলে ভাইরাস ব্যাকটেরিয়া পানিতে জন্মানোর সম্ভাবনা রয়েছে। এই পানি পান করলে আমরা ভাইরাস ব্যাকটেরিয়া ঘটিত নানা রোগে আক্রান্ত হতে পারি। যা আমাদের জীবন বিপন্ন করে দিতে পারে। তাই প্লাস্টিকের বোতলে পানি রেখে তা পান করা মোটের উচিত নয় এবং তা আমাদের স্বাস্থ্য এর জন্য ক্ষতিকর। এছাড়াও প্লাস্টিকের বোতল ব্যবহারের পর তা ফেলে দিলে পরিবেশেরও প্রচুর ক্ষতি হয়। পরিবেশ দূষণ হয়। প্লাস্টিক অবিকৃত অবস্থায় মাটিতে থাকে দীর্ঘ সময়। ফলে মাটির উর্বরতা নষ্ট হয়। ফসল উৎপাদন কমে যায়। তাই আমাদের প্লাস্টিকের বোতলের বিকল্প কিছু ব্যবহার করতে হবে।